ইতেকাফের উদ্দেশ্য ও শর্তাবলি

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

ইতেকাফ হলো মসজিদে বা নির্ধারিত স্থানে অবস্থান করা৷ রমজানের ২০ তারিখ ইফতারের আগে মসজিদে পৌঁছা মাসনুন ইতেকাফের জন্য জরুরি৷

ইতেকাফকারীদের জন্য ইতেকাফের উদ্দেশ্য ও শর্তাবলি জানা আবশ্যক৷ আর তা হলো-

ইতেকাফের উদ্দেশ্য
দুনিয়ার যাবতীয় ঝামেলা থেকে সম্পূর্ণ মুক্ত হয়ে একাগ্রতার সঙ্গে আল্লাহর ইবাদতে মশগুল হওয়া, বিনয় ও নম্রতায় নিজেকে আল্লাহর দরবারে সমর্পণ করা এবং বিশেষ করে লাইলাতুল কদরে ইবাদত-বন্দেগি করার সুযোগ লাভ করাই ইতেকাফের উদ্দেশ্য৷

ইতেকাফের শর্ত
ইতেকাফে রয়েছে কিছু শর্ত৷ আর তা হলো-
– ইতেকাফের নিয়ত করা৷ নিয়ত ব্যতীত ইতেকাফ সহিহ নয়৷
– ইতেকাফ মসজিদে করা৷ পুরুষরা মসজিদে আর নারীরা ঘরের নামাজের স্থান অথবা নির্ধারিত স্থানে ইতেককফ করবে৷ জুমআ মসজিদ না থাকলে পাঞ্জেগানা মসজিদে ইতেকাফ করা৷
– রোজা রাখা৷ ওয়াজিব ও সুন্নত ইতেকাফের জন্য রোজা রাখা শর্ত৷
– মুসলমান হওয়া৷
– জ্ঞান সম্পন্ন হওয়া৷
– নারীদের হায়েজ (মাসিক) ও নিফাসসহ (সন্তান ভূমিষ্টের পর ৪০ দিন) বড় নাপাকি থেকে পবিত্র হওয়া৷

উল্লেখ্য যে, ইতেকাফের জন্য বালেগ হওয়া শর্ত নয়৷ বরং বুঝবান ছেলে-মেয়েরা ইতেকাফ করতে পারবে৷

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহর সব নারী-পুরুষকে তার নৈকট্য অর্জনে ইতেকাফ করার তাওফিক দান করুন৷ আমিন৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *