মসজিদের ইমাম হতে হলে হাফেজ হওয়া শর্ত যে দেশে

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

মধ্যপ্রাচ্যের রাজতান্ত্রিক দেশ জর্ডান। দেশটিতে কেউ ইমাম, খতিব কিংবা ইসলামি আলোচক হতে হলে তাকে অবশ্যই পবিত্র কুরআনের হাফেজ হতে হবে। গত ২ সেপ্টেম্বর অফিসিয়াল গেজেটের মাধ্যমে দেশটি এ তথ্য নিশ্চিত করে।

জর্ডানের মসজিদে কেউ ইমাম খতিব কিংবা ইসলামি আলোচক হতে চাইলে তাকে অবশ্যই সম্পূর্ণ কুরআনের হাফেজ হতে হবে। যদি কেউ সম্পূর্ণ কুরআনের হাফেজ না হন ন্যূনতম তাকে কুরআনের ১৫ পাড়া মুখস্ত থাকতে হবে।

কুরআনের হাফেজ ছাড়া এখন থেকে কেউ জর্ডানের মসজিদের ইমাম ও খতিব হতে পারবে না; এমনকি ওয়াজ-নসিহতও করতে পারবে না।

গত রোববার ২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ এক সরকারি প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়। শুধু তাই নয়, সরকারি এ গেজেট প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গেই দেশটিতে এ আইন বাস্তবায়ন শুরু হচ্ছে।

উল্লেখ্য যে, দেশটির বর্তমান রাজবংশ নিজেদেরকে হজরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের পিতামহের (হাশেমী) বংশধর হিসেবে দাবি করে।

মসজিদের ইমাম, খতিব কিংবা ওয়ায়েজ হতে হাফেজে কুরআন হওয়ার শর্ত কুরআনের প্রতি মুসলমানদের আগ্রহকে বাড়িয়ে দেবে। বিশ্বব্যাপী তৈরি হবে অসংখ্য হাফেজ। নিঃসন্দেহে এটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ।

1 thought on “মসজিদের ইমাম হতে হলে হাফেজ হওয়া শর্ত যে দেশে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *