চাল দ্বারা ফিতরা আদায় করা যাবে কি?

জিজ্ঞাসা–৩৭৪: আসসালামুআলাইকুম। জনাব, সদকাতুল ফিতরা কি আমাদের প্রধান খাদ্যদ্রব্য চালের বিনিময় মূল্য দিয়ে আদায় করা যাবে? যদি যায় তাহলে বিনিমিয় মূল্য কত হবে জনপ্রতি?–Tafsir Ahmed

জবাব: وعليكم السلام ورحمة الله وبركاته

প্রশ্নকারী ভাই, সাদকাতুল ফিতর সম্পর্কিত হাদীসগুলো পর্যালোচনা করলে এ বিষয়ে মোট পাঁচ প্রকার খাদ্যের বর্ণনা পাওয়া যায়: যব, খেজুর, পনির, কিসমিস ও গম। চাল দ্বারা সদাকাতুল ফিতর আদায়ের কথা হাদীস শরীফে নেই। এজন্য চালকে মানদন্ড ধরে ফিতরা আদায় করার অবকাশ নেই। (তিরমিযী ১/৮৫ আবু দাউদ ১/২২৯ মুয়াত্তা মালেক ১২৪ মুসনাদে আহমদ ৬/৩৪৬ শরহু মাআনিল আছার ১/৩৫০ মুসান্নাফ ইবনে আবী শাইবা ৬/৫০১ আলইসতিযকার ৯/৩৫৫)

তবে যেহেতু উপরোক্ত খাদ্যবস্তুর পরিবর্তে সেগুলোর মূল্য আদায় করারও অবকাশ আছে। সেহেতু উল্লেখিত খাদ্যবস্তুগুলোর মধ্য থেকে কোনো একটিকে মাপকাঠি ধরে তার সমমূল্যও সদাকাতুল ফিতর হিসাবে আদায় করা যাবে। (মুসান্নাফ ইবনে আবি শায়বা-৩/১৭৪ )

সুতরাং কেউ যদি সদাকাতুল ফিতর চাল দিতে চায় তাহলে তাকে অন্তত এ পরিমাণ চাল দিতে হবে, যার মূল্য আধা সা গম কিংবা এক সা খেজুর, কিসমিস, পনির বা যবের সমপরিমাণ হয়, এরচেয়ে বেশি চাল দিলে তা নফল দান বলে গণ্য হবে।

এই কথা ঠিক নয় যে, আমাদের সাধারণ খাবার যেহেতু চাল তাই চাল-ই দিতে হবে। কারণ কোনো সহীহ হাদীসে বলা হয়নি সকল অঞ্চলের লোকদের তাদের নিজ নিজ সাধারণ খাবার দ্বারা ফিতরা আদায় করতে হবে!

والله اعلم بالصواب

উত্তর দিয়েছেন
মাওলানা উমায়ের কোব্বাদী নকশবন্দী

The post চাল দ্বারা ফিতরা আদায় করা যাবে কি? appeared first on কোরআনের জ্যোতি.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *